পোস্টগুলি

তাফসীর কি মিথ্যা হতে পারে

তাফসীর কি মিথ্যা হতে পারে-ভূমিকা বর্তমানে কোন কোন বক্তার বক্ততার অংশই কোরআন ও ছহীহ সাথে সাংঘর্ষিক। কারণ তারা তদন্ত ছাড়াই শরী'য়াতের বিপন্ন বিভিন্ন বিষয় প্রচার করেন। আমরা জানা মতে, শতকরা ৯৫ জন বক্তা যাচাই-বাছাই ছাড়া বক্তৃতা করেন। এ ধরণর প্রচারে বড় ধরনের দুটি ক্ষতি রয়েছে।(১) এতে আল্লাহু এবং আল্লাহ-রসূলের নামে প্রচার হচ্ছে, যাতে জনগণ ও সঠিক ধর্ম থেকে বিচু‍্যদ হচ্ছে(২) এমন বক্তার পরকাল বড় ভয়াবহ। নবী করিম (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেন, কোন ব্যক্তি  যদি আমার উপর মিথ্যারোপ করে, তার পরিণাম জাইহান্নাম'(বুখারী মিশকাত হা/১৪৯)। এ দেশের তাফসির মাহফিলে যারা তাফসীর করছেন, তাদের শতকরা ৯৮ জনি মুফাসসির নন। কারণ তাফসীর করার জন্য অনেক  ধরনের বিদ্যার্ প্রয়োজন । সাথে সাথে তাহক্বীক করে তাফসির করা যরূরী। কারণ তাফসির গ্রন্থগুলি জাল ও যঈফ হাদিস এবং  বানওয়াট কাহিনী দ্বারা পরিপূর্ণ। এ থেকে  সকলের সতর্ক উচিৎ। কেননা এতে যেমন দ্বীনের ক্ষতি হয়, এমনি বক্তা ও শ্রোতার পরকাল ধ্বংস হয়। বহুদিন থেকে ভাবছিলাম যে, জনগণকে মিথ্যা তাফসীর সম্পর্কে সচেতন করার জন্য একটি ব্লগ প্রকাশিত হল-ফালিল্লাহিল হা…

আমার প্রথম ব্লগ পোস্ট

আসসালামু আলাইকুম।ব্লগের জগতে আমার প্রথম পদচারণা!আমি একজন মুসলিম। ঈমান নিয়ে মৃত্যুবরণ করতে পারি এই কামনা করি। খুব দ্বিধামিত ছিলাম আমার প্রথম কি হবে। মুসলিম মনীষীদের জীবনী দিয়ে শুরু করব নাকি জিহাদি মানসিকতার লেখা লিখব অথবা সমসামরিক আল্লামা দেলোয়ার হুসাইন সাঈদীর প্রহসনের রায় জনগণের ফুঁসেওঠা সাহাবাগের ইসলাম বিদেষী কর্মকাণ্ড আলেম-ওলামাদের নাস্তিকতা বিরোধী আন্দোলন এমন কোন বিষয়ে বেছে নিতে পারি পরে ভাবলাম প্রথমে সকলে দোয়া নিই। কুরআন -হাদিস ও বিজ্ঞানের আলোকে পণ্যভিত্তিক লেখার প্রতি আমার খুব আগ্ররহ। আমার জন্য দোয়া করবেন যেন'আমৃত্য ব্লগিং এর সাথে জড়িয়ে থাকতে পারি।এখনো তেমন কিছুই জানা হয়নি। দোয়া করবেন আল্লাহ আমার জ্ঞান সাধনার বাড়িয়ে দিন দোষ এটি গুলো সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবেন এই প্রত্যাশায় সকলকে সালাম জানিয়ে বিদায় .........
বিষয় বিবিধ
Facebook page